সেরার অর্জন দিয়ে বছর শুরু জয়ার

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট :

নতুন বছরে এখনো সিনেমার শুটিং শুরু করেননি জয়া আহসান। তবে পরিচালক ও প্রযোজকদের সঙ্গে কথাবার্তা চলছে। শিগগিরই সিনেমার শুটিংয়ে যাবেন বলে জানালেন গুণী এই অভিনেত্রী। এর ফাঁকে কলকাতায় একটি বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং শেষ করেছেন জয়া। শুটিং শেষে ঢাকায় ফিরে জানতে পারেন, তাঁর কলকাতার বাড়িতে পৌঁছেছে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ের ‘বেস্ট পারফরম্যান্স অব দ্য ইয়ার’ সম্মাননা। জয়াকে না পেলেও আয়োজক প্রতিষ্ঠান পুরস্কার ঠিকই পৌঁছে দিয়েছে তাঁর কলকাতার বাড়িতে।
সিনেমায় অভিনয় নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারত দুই দেশে সমানতালে ব্যস্ত জয়া আহসান। অভিনয়ের জন্য বাংলাদেশে তিনি যেমন জনপ্রিয়, কলকাতাতেও কোনো অংশে কম নন। আর তাই তো ভারতীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম জয়া আহসানকে ২০২০ সালের সেরা অভিনয়শিল্পীর স্বীকৃতি দেওয়ার সুযোগটি হাতছাড়া করেনি।

গত বছরের শেষ দিকে জানা যায়, মাদ্রিদ উৎসবে সেরা অভিনয়শিল্পী নির্বাচিত হন জয়া আহসান। স্পেনের মাদ্রিদ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কার জেতেন তিনি। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাংলা সিনেমা ‘রবিবার’-এ অভিনয়ের জন্য এই স্বীকৃতি পান। আর নতুন বছর শুরু হয়েছে ভারতীয় জনপ্রিয় স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ের দৃষ্টিতে বেস্ট পারফরম্যান্স অব দ্য ইয়ার (মুভি) নির্বাচিত হওয়ার মধ্য দিয়ে। ‘কণ্ঠ’ ও ‘রবিবার’ ছবিতে অসাধারণ অভিনয়ের জন্য জয়ার ঘরে এসেছে এই স্বীকৃতি।

বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রথম আলোর সঙ্গে কথা হয় জয়া আহসানের। তিনি বলেন, ‘আসলে কোনো প্রত্যাশা যখন না থাকে, তখন কিছু পাওয়াটা বোনাস। এটা একদমই অপ্রত্যাশিত ছিল। তাই ভালো লাগাটা দ্বিগুণ। কারণ, বিনোদনপ্রেমীদের কাছে হইচই একটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম। তবে এই প্ল্যাটফর্মে আমি এখনো কোনো কাজ করিনি। এমনকি দেশ–বিদেশের কোনো ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্যই আমার কাজ করা হয়নি। তারপরও কোনো ওটিটি প্ল্যাটফর্ম যখন আমাকে গত বছরের সেরা মনে করছে, নিঃসন্দেহে তা অনেক বড় একটা পাওনা। সত্যিই এটা খুবই সারপ্রাইজিং ছিল।’

দুই দেশের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী হিসেবে জয়া আহসানকে এর আগেও ভিন্ন রকম এক সম্মাননা দিয়েছে হইচই, জয়ার জন্মদিনে যা সবার নজরে আসে। ওই দিন হইচই তাদের প্ল্যাটফর্মে ‘শেডস অব জয়া আহসান’ নামে আলাদা একটা প্যানেল করেছিল, যা এখনো শোভা পাচ্ছে। জয়া আহসান অভিনীত ছবিগুলো ওখানে আলাদাভাবে সাজানো আছে, সিনেমাপ্রেমীরা চাইলেই একনজরে জয়া অভিনীত ছবিগুলো দেখে নিতে পারেন সেখান থেকে।

জয়া বলেন, ‘যেকোনো অর্জন যেমন আনন্দের, তেমনি দায়িত্বও বেড়ে যায়। একজন মানুষ যখন নিজেকে নিজে ছাড়িয়ে যায়, তখন একটা চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়তে হয়। অনেক বড় একটা দায়িত্ব আর দায় চলে আসে—আগের চেয়ে ভালো কিছু করার, ভালো কিছু অর্জন করার।’

করোনাকালে ঘরে বন্দী থাকার একঘেয়েমি দূর করেছে ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলো। তাই তো দেশ–বিদেশের সিনেমাপ্রেমীরা ভিড় করেছেন বিভিন্ন ওটিটি প্ল্যাটফর্মে।

এসব প্ল্যাটফর্মে দর্শকের চাহিদায় যাঁরা সবার আগে ছিলেন, হইচই তা থেকে যাচাই–বাছাই শেষে ঘোষণা করে বছরের সেরাদের তালিকা। এই সেরার তালিকায় এসেছে বাংলাদেশের অভিনেত্রী জয়া আহসানের নাম।
অতনু ঘোষের ছবি ‘রবিবার’। প্রধান চরিত্রে জয়ার বিপরীতে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। শিবপ্রসাদ-নন্দিতার ‘কণ্ঠ’ ছবিতেও অভিনয়ের জাদু দেখিয়েছেন জয়া। মূল চরিত্র অর্জুন বাচিকশিল্পী, রেডিও জকি। হঠাৎ তাঁর ক্যানসার ধরা পড়ে। কীভাবে তিনি এই রোগের সঙ্গে লড়াই করে নিজের স্বরকে ফিরিয়ে এনেছেন, সেই উত্থান-পতনের গল্প ‘কণ্ঠ’। ছবিতে জয়া আহসান একজন স্পিচ থেরাপিস্ট।

আমাদের অফিসিয়াল সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগদান করুন যাতে আপনি সর্বশেষ বিশেষ সংবাদ নতুন চাকরীর বিজ্ঞপ্তি, সরকারী চাকরীর বিজ্ঞপ্তি, বেসরকারী চাকরীর বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে পারেন।

www.facebook.com/DainikAmaderDinkal 

www.twitter.com/amaderdinkal

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

amaderdinkal.com

ডেস্ক রিপোর্ট

%d bloggers like this: