প্লাঙ্কেটকে ‘খুন’ করতে চেয়েছিলেন শোয়েব আখতার

শোয়েব আখতার। ছবি: টুইটারশোয়েব আখতারের আগুনে বোলিংয়ের সামনে পড়লে যে কোনো ব্যাটসম্যানেরই বুকে কাঁপন ধরত। আর যদি অভিষেকেই কেউ শোয়েবের মুখোমুখি হয়ে ‌’খুন’-এর হুমকি পান, তাহলে তো তাঁর আত্মারাম খাঁচাছাড়া হয়ে যাওয়ার কথা! তেমনই একটা অভিজ্ঞতা হয়েছিল ইংলিশ পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেটের।

ঘটনাটা প্লাঙ্কেটের অভিষেক টেস্টের। ২০০৫ সালে পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। লাহোরে তৃতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করছিল সফরকারীরা। ইংল্যান্ড ২৪৯ রানে হারিয়ে ফেলে ৭ উইকেট। টেল এন্ডার প্লাঙ্কেট এরপরই আসেন ব্যাটিংয়ে। ৭৮তম ওভারের শেষ দুই বলে দানিশ কানেরিয়াকে সামলান প্লাঙ্কেট। এরপরই আসেন গতিদানব শোয়েব আখতার। তখন রীতিমতো ঘণ্টায় ৯০ মাইল গতিতে বল করছেন ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’।

ওই সময়ই প্লাঙ্কেটকে ভড়কে দেওয়ার জন্য শোয়েব মজা করে বলেছিলেন ‘খুন’ করার কথা। অবশ্য কাউন্টিতে দুজন একই সঙ্গে খেলতেন ডারহামের হয়ে। আর এজন্যই বোধহয় এভাবে মজা করতে পেরেছিলেন।

স্মৃতির সরণীতে হেঁটে সেই দিনের কথা মনে করে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী তারকা বলছিলেন, ‘কাউন্টিতে ও ভয়ঙ্কর ছিল। বদলি হিসেবে ফিল্ডিং করতাম শোয়েব আর হার্মির (স্টিভ হার্মিসন) জন্য। হার্মির জন্য স্লিপে, শোয়েবের জন্য লেগ স্লিপে দাঁড়াতাম। এরপর আমার প্রথম টেস্ট ম্যাচে শোয়েবের মুখোমুখি হতে হলো। এর আগেও যেহেতু ওর সঙ্গে ডারহামে খেলেছি, টেস্ট ম্যাচে আমার সঙ্গে তাই এমন মজা করল। রানআপে ফেরার সময় ও আমার কাছে এসে হেসে বললো, তোমাকে খুন করে ফেলব।’

অবশ্য শেষ দিকে নেমে বেশ ভালোই খেলেছিলেন প্লাঙ্কেট। ৬০ বলে করেন ৯ রান। শেষ পর্যন্ত শোয়েব আখতার আউট করতে পারেননি প্লাঙ্কেটকে। ইংল্যান্ডের পেসারকে আউট করেছিলেন মোহাম্মদ সামি। শোয়েবের বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা খারাপ ছিল না প্লাঙ্কেটের, ‘আমার মনে হয় প্রথম বলটা ভালোই খেলেছিলাম। আমি ডাক করি। ওর বাউন্সার আমার কাঁধে আঘাত করে এরপর। ওই সময় আমি শুধু আমার প্যান্ট ঠিক করছিলাম।’

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

amaderdinkal.com

ডেস্ক রিপোর্ট

%d bloggers like this: