কন্যা সন্তানের মা হয়েছেন আনুশকা শর্মা। আজ সোমবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই আনন্দের খবর জানিয়েছেন আনুশকার স্বামী ভারতীয় ক্রিকেট তারকা বিরাট কোহলি। মা ও শিশু দুজনই সুস্থ আছে বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি।

আজ বিকেলে এক টুইট বার্তায় কোহলি লিখেছেন, ‘আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে আজ বিকেলে আমরা একটি কন্যাসন্তানের বাবা–মা হয়েছি। আপনাদের ভালোবাসা, প্রার্থনা ও শুভকামনার জন্য ধন্যবাদ জানাই। আনুশকা ও বাচ্চা দুজনই সুস্থ আছে। জীবনের এই নতুন অধ্যায় শুরু করতে পেরে নিজেদের ধন্য মনে করছি। আশা করি, এই সময়ও সবার আন্তরিক সহায়তা পাব।’

পণ্ডিত জগন্নাথ গুরুজি নামের ভারতীয় এক জ্যোতিষী আগাম জানিয়েছিলেন যে আনুশকা কন্যার মা হবেন। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও অভিনেত্রী আনুশকা শর্মাকে বিশেষ উপায়ে পর্যবেক্ষণ করে তিনি সেটা নিশ্চিত হয়েছিলেন।

গত বছরের আগস্ট মাসেই বিরাট ভক্তদের জানিয়েছিলেন, শিগগিরই তাঁদের পরিবারে নতুন সদস্য আসছে। সন্তান আগমনের ঘোষণাটি করার পর থেকেই নতুন জীবনের যাত্রা নিয়ে দুজনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেদের নানা ভাবনা ভাগাভাগি করতেন। স্ত্রীর কাছাকাছি থাকতে বিরাট কোহলি আগাম ছুটি নিয়ে দেশে ফিরে এসেছিলেন। মেয়ের জন্মের সময় জাতীয় দলের পরিবর্তে তাঁর দেশে ফেরা নিয়ে বিতর্কের শেষ ছিল না। যদিও ওই সময়ে বেশ কেটেছে আনুশকার। মাতৃত্বকালীন ভোগ সাময়িকীকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আনুশকা বলেছিলেন, ‘প্রথম তিন মাস কেবল টোস্ট আর ক্র্যাকার্স খেয়েছি। কখনো আবার কেবল আলুর বার্গার আর ভেলপুরি খেতে ইচ্ছা হতো।’

এই দুই তারকার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ২০১৩ সালে। ২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর ইতালির তাসকেনি প্রদেশের ফ্লোরেন্সে এক ঐতিহ্যবাহী রিসোর্টে বিরাট কোহলির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন আনুশকা শর্মা। এটি ছিল ২০১৭ সালে বলিউডের সবচেয়ে আলোচিত বিয়ের অনুষ্ঠান। ইতালিতে বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে ফিনল্যান্ডে সংক্ষিপ্ত হানিমুন সেরে আসেন এই জুটি। বিরাট ও আনুশকা তাঁদের সন্তানকে মানুষের চোখের সামনে বড় করতে চান না। এমনকি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আনতে চান না সন্তানকে।

অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা সর্বশেষ প্রযোজক হিসেবে কাজ করেন একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য। তাঁর প্রযোজনা সংস্থার সিরিজ ‘পাতাললোক’ ও সিনেমা ‘বুলবুল’ ভূয়সী প্রশংসা কুড়ায়। তাঁকে শেষ অভিনয় করতে দেখা যায় ২০১৮ সালে শাহরুখ খানের সঙ্গে আনন্দ এল রায়ের ‘জিরো’ ছবিতে।